1. admin@www.nequranboard.com : admin :
  2. momtajuddinakash@gmail.com : Akash Sir :
  3. utshoacademicare@gmail.com : Arif Sir :
  4. bdarifulmail@gmail.com : Ariful Islam : Ariful Islam
  5. fahnur.sohag@gmail.com : Fahanur Rahman : Fahanur Rahman
  6. muntasirrahman1998@gmail.com : Muntasir Rahman : Muntasir Rahman
  7. shahanajsanu85@gmail.com : Sanu :
  8. utshoacademiccare@gmail.com : Utsho :

শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের জন্য ওয়েবসাইট কেন দরকার !!

ঠিক এই সময়ে আর দশটি বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠাণের মত শিক্ষা প্রতিষ্ঠাণের ওয়েবসাইট ব্যাপক গুরুত্ব বহন করছে। মফস্বল এলাকার স্কুল- কলেজে একটি ওয়েবসাইট শিক্ষা ব্যবস্থাকে উন্নততর করতে পারে অভাবনীয়ভাবে। মেট্রোপলিটন ও শহর নগর এলাকার শিক্ষারর্থীরা প্রায় সব দিক থেকেই বিশেষ সুবিধা পেয়ে থাকে। শহুরে প্রায় প্রতিটি ছাত্র-ছাত্রী পড়াশোনায় বিভিন্নভাবে প্রযুক্তির সহযোগিতা নেয়। মফস্বল এলাকার শিক্ষার্থীরা তেমনটি পায় না। অথচ স্বস্ব কর্তৃপক্ষ উদ্যেগ নিয়ে শিক্ষার্থীদের প্রযুক্তির ছোঁয়া দিতে পারে। এই সময়ে আধুনিক প্রায় প্রতিটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠাণ নিজস্ব ওয়েবসাইট করেছে। শ্রদ্ধেয় স্যার, আপনি নিশ্চয়ই একমত হবেন, আজ কাল যখনই হোক আপনার শিক্ষা প্রতিষ্ঠাণকে ওয়েবসাইটসহ অন্যান্য অনলাইন ব্যবস্থার আওতায় নিয়ে আসতেই হবে। সময়ের স্রোতকে আমরা অস্বীকার করতে পারি না। সে স্রোতকে যদি আমরা শুভ মনে করি, তাহলে তাতে সক্রিয় অংশগ্রহণ করা হবে আধুনিকতারই মঙ্গল চর্চা। সরকারের পক্ষ থেকে ইউনিয়ন কাউন্সিল ভিত্তিক ওয়েবপোর্টালে শিক্ষা প্রতিষ্ঠাণের সামান্য তথ্য রাখলেও শিক্ষার্থীদের সেসব কাজে আসছে না। শ’ শ’, হাজার হাজার শিক্ষার্থীকে উপযুক্ত তথ্য দিয়ে সহায়তা করতে শিক্ষা প্রতিষ্ঠাণের নিজস্ব ওয়েবসাইট ডেভেলপ করার বিকল্প নেই। বর্তমানে ‘জ্ঞানই শক্তি’ ধারণার চেয়ে ‘তথ্যই শক্তি’ ধারণাকে শক্তিশালী মনে করা হচ্ছে। শ্রদ্ধেয় শিক্ষাসেবী, আপনার প্রতিষ্ঠাণের প্রতিটি শিক্ষার্থীকে একটি ওয়েবসাইট কিভাবে সহায়তা করবে, তার কয়েকটি নমুনা আলোচনা করছি।

# ওয়েসাইটের হোম পেজ :
প্রতিষ্ঠানের স্বতন্ত্র ওয়েবসাইটের হোম পেজের শুরুতে থাকবে স্বতন্ত্র ব্যানার। যাতে থাকবে প্রতিষ্ঠানের নাম, ঠিকানা, রেজি: নং, ইন নং, মোবাইল/ ফোন নাম্বার, ইমেইল ঠিকানা, প্রতিষ্ঠান প্রধান ও প্রতিষ্ঠাতার নাম ইত্যাদি। তারপর যাবতীয় মেনু, প্রতিষ্ঠানের ছবি, পরিচিতি, জন্মকথার পূর্ণাঙ্গ তথ্য, এলাকার অন্যান্য ওয়েবসাইটের লিংক, সরকারী ই- সেবা ভিক্তিক লিংক, জাতীয় ও আন্তর্জাতিক সব ধরণের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের লিংক ইত্যাদি। অনলাইন টিভি, বিবিসি রেডিও, অনবরত ভিডিও ক্লাশ, গুগল ম্যাপ, এলাকা ভিত্তিক সময়ের ঘড়ি ইত্যাদি। তাছাড়া সর্বশেষ নোটিশ, অনলাইন ভর্তি, অনলাইন রেজাল্টসহ ওয়েবাইটের অভ্যন্তরীন প্রয়োজনীয় বিষয়াবলীর লিংক থাকবে হোম পেজে।
# পরিচিতি :
প্রতিষ্ঠানের বিস্তারিত পরিচিতি, ইতিহাস, উদ্দেশ্য, লক্ষ্য, ভৌত অবকাঠামো ইত্যাদি থাকবে পরিচিতি মেনুর অন্তর্গত।
# একাডেমিক ক্যালেন্ডার :
ওয়েবসাইটের শিক্ষা বিষয়ক কার্যক্রমের সমস্ত তথ্য থাকবে একাডেমিক মেনুতে। একাডেমিক মেনুর সাব মেনু হিসেবে আরো থাকবে প্রসপেকটাস, বিভাগ ভিত্তিক ক্লাস রুটিন, পাঠ পরিকল্পনা, নির্দেশনা।
# নোটিশ বোর্ড :
প্রতিষ্ঠানের যাবতীয় নোটিশ থাকবে নোটিশ বোর্ড মেনু পেজে। চলতি দিনের নোটিশসহ বিগত যে কোন নোটিশ রাখা যাবে, সেটি খুব সহজে পড়ার পাশাপাশি ডাউনলোড করা যাবে। তাছাড়া আপডেট নোটিশ’র শর্টকাট লিংক থাকতে হবে হোম পেজে।
# ভর্তি প্রক্রিয়া :
‘ভর্তি প্রক্রিয়া’ মেনু ও অন্তর্গত ‘ভর্তি নিয়মাবলী’, ‘ভর্তি পরীক্ষা’, ‘ভর্তি ফরম’, ‘অন্যান্য ফরম’, ইত্যাদি মেনুর মাধ্যমে শিক্ষার্থী ভর্তি সংক্রান্ত যাবতীয় প্রয়োজন মেটাতে পারবে। অত্যাধুনিক প্রক্রিয়ায় শিক্ষার্থী ছবিসহ যাবতীয় তথ্য ওয়েবসাইটের মাধ্যমে কর্তৃপক্ষের কাছে জমা দিতে পারবে। ফলে পুরনো ছাপা ফরম, স্টাপলিং করে ছবি সংযুক্তি, কেরানীর কাছে জমা ইত্যাদি ঝামেলাপূর্ণ প্রক্রিয়ার অবসান ঘটানো যাবে।
# ফলাফল :
প্রতিষ্ঠানের ফলাফল প্রকাশ করা যাবে ওয়েবসাইটের মাধ্যমে। শিক্ষার্থী তার ক্লাশ ও রোল নাম্বার ইনপুট দিয়ে সার্চ দিলে পেয়ে যাবে অটোমেটিক গ্রেডিং সিস্টেমসহ মার্কসিট। বিশ্ববিদ্যালয় পর্যায়ের শিক্ষার্থীরা যেভাবে রেজাল্ট পেয়ে থাকে, কর্তৃপক্ষ ইচ্ছা করলে স্কুল- কলেজ পর্যায়ের তৃণমূল শিক্ষার্থীদেরও সে সুযোগ দিতে পারে।
# যোগাযোগ :
স্থানীয় ঠিকানা, রোডম্যাপ নির্দেশনা, গুগল ম্যাপ, সেলফোন, টেলিফোন, ফ্যাক্স, ইমেইল, ইত্যাদি তথ্য সমৃদ্ধ যোগাযোগ পেজ থাকবে।
# অভিযোগ কর্ণার : শিক্ষার্থী, অবিভাবক ও সংশ্লিষ্ঠরা প্রতিষ্ঠান কর্তৃপক্ষকে যে কোন মতামত, অভিযোগ জানাতে পারবে। সেজন্য থাকবে ডায়ানামিক কন্টাক্ট ফরম।

(প্রতিষ্ঠান সংক্রান্ত আরো তথ্য রাখার জন্য স্বতন্ত্র ওয়েবসাইটে যেসকল মেনু রাখা যেতে পারে।)

# পরিচালনা পর্ষদ :
নাম, পদবী, ঠিকানা, ফোন নাম্বার, ছবিসহ প্রতিষ্ঠানের পরিচালনা পর্ষদের তথ্য থাকবে ওয়েবসাইটে।
# সভাপতির বাণী :
পরিচালনা পর্ষদের প্রধানতম ব্যক্তি হিসেবে প্রতিষ্ঠান সম্পর্কে অভিমত, দর্শণ, পরিকল্পনা ইত্যাদি সংক্রান্তসভাপতির বাণী থাকবে ওয়েবসাইটে।
# প্রতিষ্ঠান প্রধানের বাণী :
প্রতিষ্ঠান সম্পর্কে প্রধান শিক্ষক/ অধ্যক্ষের বাণী থাকবে ওয়েবসাইটে।
# শিকমন্ডলী :
বিষয় ও পদ ভিত্তিক শিক্ষক/ কর্মকর্তা/ কর্মচারীদের ছবি, ফোন নাম্বার, ইমেইলসহ আলাদা প্রফাইল রাখা হবে ওয়েবসাইটে। এখানে উল্লেখ্য, প্রতিষ্ঠানের প্রতিটি শিক্ষকের জন্য আলাদা ওয়েবমেইল একাউন্ট থাকবে।
# ওয়েবমেইল :
স্বতন্ত্র ওয়েবসাইটের ডোমেইন-হোস্টিং ব্যবহার করে প্রতিষ্ঠানের পরিচালনা পর্ষদ, শিক্ষকমন্ডলীর আলাদা ইমেইল একাউন্ট থাকতে হবে।
# অর্জন :
স্থানীয়/ থানা/ জেলা/ বিভাগীয়/ জাতীয় পর্যায়ে বিশেষ ফলাফল/ খেলাধুলা/ সাংস্কৃতিক ইত্যাদি অর্জন তুলে ধরার জন্য প্রতিষ্ঠানের ওয়েবসাইটে ‘অর্জন’ নামক আলাদা মেনু থাকবে।
# সংগঠণ :
স্কাউট, রেড ক্রিসেন্ট ইত্যাদি সংগঠন প্রতিষ্ঠানে পরিচালিত হলে তাদের কার্যক্রম উপস্থাপনের জন্য সংগঠণ নামক মেনু থাকবে।
# ছবিঘর :
বর্তমান ক্যাম্পাসের অবস্থা, শিক্ষাসফর, বিশেষ দিন, কালচারাল প্রোগ্রাম- ইত্যাদির ছবি, ভিডিও থাকবে ওয়েবসাইটে।

একটি ওয়েবসাইট প্রস্তুত থাকে ৩৬৫ দিন চব্বিশ ঘণ্টা পৃথিবী ব্যাপি জীবনযাত্রাকে সহজতর করার কাজে। শিক্ষা ব্যবস্থার সাথে ইন্টারনেটের সংযোগ কতটা সহায়ক, আধুনিক প্রতিটি মানুষই সে বিষয়ে জেনে থাকবেন। কালের পরিক্রমায় ও প্রযুক্তির উন্নয়নে একটি ওয়েবসাইটের গর্বিত মালিক হওয়া এখন আর ততটা ব্যয়বহুল নয়। আপনার শিক্ষা প্রতিষ্ঠাণকে আলোঘরে রূপায়ন করতে আমরা নির্মাণ শ্রমিকের ভূমিকায় দাঁড়াতে চাই। আপনার চাহিদাকে পুঁজি করে আমরা নির্মাণ করতে চাই একুশ শতকের আরেকটি আলোঘর। আপনার প্রতিষ্ঠাণের প্রতিটি শিক্ষার্থীর কাছে পৌছে দিতে চাই প্রযুক্তি ও সময়ের সু-বাতাস।
ধন্যবাদ।

All rights reserved ©2005 নূরানী ইশা'আতুল কুরআন বোর্ড বাংলাদেশ
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: আকাশ আইটি লিমিটেড
01762354053